Thursday , 22 August 2019
Home » Blogger » ব্লগার বনাম ওয়ার্ডপ্রেস,কোনটি সেরা?বেচেনিন আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী।

ব্লগার বনাম ওয়ার্ডপ্রেস,কোনটি সেরা?বেচেনিন আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী।

আসসালামু আলাইকুম

সবাই কেমন আছেন?

ব্লগিং নিয়ে কথা আসলেই প্রথমে যেটা মাথাতে আসে wordpress এবং blogger(blogsopt).

মাথায় তো আসে কিন্তু সমস্যা হচ্ছে আমরা সহজেই সিদ্ধান্ত করতে পারিনা কোন প্লাটপর্ম টা আমাদের জন্য উপযুক্ত বা কোনটা দিয়ে আমাদের শুরু করা উচিৎ ।

এই সিদ্ধান্তের দুটানা থেকে মুক্ত করতেই আমার আজকের পোস্ট।

আজকের পোস্টে আমি আলোচনা করব ব্লগার এবং ওয়ার্ডপ্রেস এর মাঝে পার্থক্য কী?

কোনটাতে কী সুবিদা এবং কী অসুবিদা,নতুন অবস্থায় আমাদের কোনটি বেচে নেয়া উচিৎ(আমার মতে)।

তাহলে শুরু করা যাক-

মালিকানাঃ-

আপনি নিশ্চয় জানেন ব্লগার হচ্ছে টেক জায়ান্ট গুগল এর একটি সার্ভিস এর সম্পুর্ন মালিকানা গুগল বহন করে আপনি এখানের একজন ব্লগ প্রকাশক হতে পারবেন।

অন্যদিকে ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে একটি মুক্ত কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (CMS) এটি ফ্রিতে ডাওনলোড করে আপনি আপনার নিজস্ব হোস্টিং এ ব্যবহার করতে পারবেন এর সম্পুর্ণ মালিকানা আপনার নিজের।

সিকিউরিটিঃ-

ব্লগ সাইটের ডাটা সুরক্ষিত রাখা খুভি গুরুত্বপুর্ণ একটা বিষয়।ব্লগার যেহেতু সরাসরি গুগল এর নিজস্ব সার্ভার এ পরিচালিত হয় তাই এর সম্পূর্ণ সিকিউরিটি এর দায়িত্ব গুগলএর।তাইবলে সব গুগলের উপর ছেড়েদিয়ে বসে তাকলে চলবে না আপনার ব্লগারের জিমেইল কে সুরক্ষিত রাখার দায়িত্ব আপনাকে নিতে হবে।

আবার ওয়ার্ডপ্রেসে যেহেতু বিভিন্য থার্ডপার্টি প্লাগইন এবং থীম ব্যবহার করা হয় তাই ওয়ার্ডপ্রেস এর দুর্বলতা না থাকলেও এইসব থীম এবং প্লাগইন এর দুর্বলতার কারণে আপনার সাইটে সিকিউরিটি এর প্রব্লেম হতেপারে।আবার ওয়ার্ডপ্রেস এর বিভিন্য প্লাগইন ব্যবহার করে সাইটের সিকিউরিটি বাড়ানো ও যায়।তাছাড়া অবশ্যই আপনার হোস্টিংকে সিকিউর রাখতে হবে।

খরচঃ-

খরচ এর কথা চিন্তা করলে ব্লগারই সেরা কেননা এখানে আপনার সমস্ত দায়িত্ব গ্রহন করবে গুগল নিজে এবং আপনি পাবেন আনলিমিটেড ব্যান্ডওয়াইড ,সাব-ডোমেইন এবং কিছু থীম সম্পুর্ণ গুগল এর খরচে।

আর ওয়ার্ডপ্রেস যেহেতু নিজের হোস্টিং এ সেটআপ করতে হয় তাই আপনাকে হোস্টিং এবং ডোমেইন কিনতে হবে।তাই এখানে আপনার কিছু খরচ হবে যা ডোমেইন এর জন্য বাৎসরিক এবং হোস্টিংয়ের জন্য হোস্টিং ধরন অনুযায়ী দৈনিক, মাসিক বা বাৎসরিক হতে পারে।

ইনকামঃ-

ব্লগিং করার একটা উদ্দেশ্য হচ্ছে আয় করা আবার অনেকে শখের জন্য ও ব্লগিং করেন তবে আমি যেহেতু বিস্তারিত আলোচনা করব তাই কোনটাতে এইটা বলা উচিৎ কোনটাতে কেমন আয় ,বাস্তব হচ্ছে দুইটাতেই সমান আয়।

তবে ব্লগার থেকে আয় করতে কোন খরচ নাই এবং ওয়ার্ডপ্রেস এর খরচ আছে যা পূর্বে আলোচনা করেছি।তবে আয় কিন্তু ব্লগার বা ওয়ার্ডপ্রেস থেকে হবেনা এর জন্য আপনাকে এডসেন্সে এপ্লাই করতে হবে এবং এপ্রোভাল পেতে হবে ,আপনার সাইটের ডিজাইন এবং কন্টেন্ট অবশ্যই ভাল হতে হবে তাছাড়া আপনি ১ টাকাও আয় করতে পারবেন না।

নিয়ন্ত্রনঃ-

ব্লগারে আপনার নিয়ন্ত্রন খুভি সামান্য।এখানে আপনি সবকিছু নিজেরমত নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন না।যেমনঃ- ডাটাবেজের নিয়ন্ত্রন আপনি করতে পারবেন না এবং আপনার পোস্ট/পেজ/ ক্যটাগরি এর ইউ আর এল স্টাকচার আপনি ইচ্ছামত চেঞ্জ করতে পারবেন না।কিন্তু ওয়ার্ডপ্রেসে তা সম্পুর্ন বিপরীত,এখানে আপনি সবকিছুর ১০০% নিয়ন্ত্রন পাবেন।

সহজবোধ্যতাঃ-

ওয়ার্ডপ্রেস এর তুলনায় ব্লগার পরিচালনা করা অনেক সহজ,আপনি অনায়াসেই ব্লগারের নিয়ন্ত্রন শিখতে পারবেন কারণ ব্লগারে ফাংশনালিটি খুভি কম এবং অনেক সাজালো গুছালো অপরদিকে ওয়ার্ডপ্রেস এর ফাংশনালিটি অনেক বেশী তাই এইটি পরিচালনা করা একটু কঠিন।

ক্ষমতায়নঃ-

ব্লগার ডট কমে আপনার ক্ষমতা সীমিত। ব্লগ প্রকাশক হিসেবে আপনি ব্লগে তিনটি অ্যাকসেস দিতে পারবেন। যেটা আপনি ব্লগার এর “Setting” নামক অপশন থেকে করে পরির্তন থেকে করে নিতে পারবেন।

  • সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত ব্লগ : আপনি নিজে ছাড়া অন্য কেউ ব্লগ ভিজিট করতে পারবে না। এ ধরনের অ্যাকেসের মাধ্যমে সাধারণত সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত ডায়েরি তৈরি করা হয়।
  • নির্দিষ্ট পাঠক ব্লগ : আপনি ইমেইল ইনভাইটেশন পাঠিয়ে নির্দিষ্ট করে দিতে পারবেন কারা কারা আপনার ব্লগের পাঠক হবে। সেক্ষেত্রে অন্য কেউ ব্লগ পড়তে পারবে না কিংবা পাঠক হওয়ার জন্য অনুরোধও করতে পারবে না।
  • সার্বজনিন ব্লগ :এক্ষেত্রে যে কেউ চাইলে বিশ্বের যে কোন প্রান্ত হতে আপনার ব্লগ পাঠ করতে পারবে।

কিন্তু আপনি নির্ধারিত কোন ব্লগ বা পেজ এই রকম করতে পারবেন।

অপরদিকে, ওয়ার্ডপ্রেসে আপনি ইচ্ছামতো যেকোন পেজ বা ব্লগে এই সিস্টেম করতে পারবেন।

এসইওঃ-

ব্লগার যেহেতু সর্ববৃহৎ সার্চ জায়ান্ট গুগলের মালিকাধীন তাই এটি যে ডিফল্টভাবেই এসইও ফ্রেন্ডলি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। আপনি যদি এসইও সম্পর্কে একেবারেই অজ্ঞ হোন সেক্ষেত্রে ব্লগারের চেয়ে ভালো কোন প্লাটফর্ম আর নেই। ব্লগারে অন্য যেকোন প্লাটফর্মের চেয়ে ইমেইজ খুব ভালো এসইও র্যাংক করে। তবে ব্লগারে অ্যাডভান্স লেবেলের এসইও সম্ভব নয়।

ওয়ার্ডপ্রেস ডিফল্টভাবে এসইও স্ট্র্যাকচার ফলো না। তবে এটি বেশ এসইও ফ্রেন্ডলি। কিছু সেটিং ঠিক করে নিলে সার্চ র্যাংকিয়ে বেশ ভালো ফল পাওয়া যায়। তাছাড়া বিভিন্ন প্লাগইন ব্যবহার করে অ্যাডভান্স লেবেলে এসইও করা সম্ভব।
[Collect form Google]

কাস্টমাইজেশন

ওয়ার্ডপ্রেস এর চেয়ে ব্লগার এর কাস্টমাইজেশন অনেক সহজ কিন্তু এ জন্য “Html & Css” জানতে হবে।

আমার পরামর্শ

যদি আপনি ব্লগিং এ নতুন হন আর প্রাথমিক অবস্থায় টাকা খরচ করতে না চান তবে আপনার ব্লগার বেচে নেওয়া উচিত বলে আমি মনে করি। এখন বাকীটা আপনার উপর। আপনার কোনটা পছন্দ।

আশাকরি আপনার ব্লগিং ক্যারিয়ার শুরু করার পূর্বে এটি আপনার কাজে লাগবে। এতক্ষণের আলোচনা ও সুপারিশকৃত পোস্ট থেকে আপনি হয়তো সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছেন ব্লগিংয়ের জন্য আপনার বেস্ট প্লাটফর্ম কোনটি। তাহলে আপনার জন্য অনেক অনেক শুভকামনা। যে কোন সমসায় আপনি কমেন্ট করতে পারেন।

video about this post:

About Mir Md Aminul Haque

প্রযোক্তিকে ভালবাসি ,নিত্য জানতে চাই নতুন কিছু,ছড়িয়ে দিতে চাই উজার করে নিজের জ্ঞান সবার মাঝে।

Check Also

deactivate laptops built in keyboard

deactivate laptops built in keyboard – দেখেনিন কিভাবে।

deactivate laptops built in keyboard এই পোস্টটা আপনার জন্য খুবই দরকারি ,যদি আপনি laptop user…

Leave a Reply

Your email address will not be published.