Thursday , 21 November 2019
Home » Islamic » দাড়ি না রেখে মারা গেলে কি জান্নাতে যাওয়া যাবে?জেনে নিন কোরআন হাদিসের আলোকে।

দাড়ি না রেখে মারা গেলে কি জান্নাতে যাওয়া যাবে?জেনে নিন কোরআন হাদিসের আলোকে।

আসসালামু আলাইকুম

সবাই কেমন আছেন ?আশা করি ভালই আছেন,ইনেক দিন ধরে আমাদের সাইটে নতুন কোন পোস্ট করা হচ্ছিল না এর কারন ছিল আমাদের সাইটে কিছু ট্যাকনিকাল প্রব্লেম ছিল।আল্লাহর অশেষ রহমতে আমাদের প্রব্লেম টির সমাধান হয়েছে,এবং এখন থেকে নিয়মিত পোস্ত করা হবে ইনশাআল্লাহ।এবং আমাদের সাইট এর সমস্যা সমাধান হওার পরেই আপনাদের জন্য একটি গুরুত্বপুর্ন ইনলামিক পোস্ট নিয়ে হাজির হলাম।

আমরা সকল মুসলমানরাই একতা বিষয়ে চিন্তায় থাকী যে দাড়ি না রেখে মারা গেলেকি জান্নাতে যাওয়া যাবে কি না,আর আজকের পোস্টে আমরা এই বিশয়ে একটা প্রশ্নের উত্তর দেখব একজন আলেম এর কাছ থেকে…

প্রশ্ন: একজন মুসলিম নামাজী কিন্তু দাড়ি না রেখে মারা গেছে এবং টাখনুর উপরে ও প্যান্ট পরিধান করত না। এ ব্যাক্তি কি জান্নাতি হতে পারবে?

উত্তর:
দাড়ি কাটা, ছাটা বা মুণ্ডন করা, (পুরুষদের জন্য) টাখনুর নিচে কপড় ঝুলিয়ে কাপড় পরিধান করা ইত্যাদি কবীরা গুনাহ। মুসলিম ব্যক্তির জন্য এ সব গুনাহ থেকে তাৎক্ষনাৎ তওবা করা ফরজ। 
কিন্তু কোন ব্যক্তি যদি এ সকল কবিরা গুনাহে লিপ্ত থাকা অবস্থায় তওবা না করে মৃত্যু বরণ করে তাহলে সে গুনাহগার অবস্থায় মৃত্যু বরণ করল। আখিরাতে আল্লাহ চাইলে তাকে জাহান্নামে শাস্তি দিতে পারেন আবার দুনিয়ার জীবনে কোন নেক কাজ করার কারণে তাকে ক্ষমাও করতে পারেন। এটি সম্পূর্ণ মহান আল্লাহর ইচ্ছাধীন বিষয়। তবে ক্ষমা পাওয়ার জন্য শর্ত হল, দুনিয়ার জীবনে শিরক থেকে দূরে থাকা।

আল্লাহ তাআলা বলেন:

إِنَّ اللَّـهَ لَا يَغْفِرُ أَن يُشْرَكَ بِهِ وَيَغْفِرُ مَا دُونَ ذَٰلِكَ لِمَن يَشَاءُ ۚ وَمَن يُشْرِكْ بِاللَّـهِ فَقَدِ افْتَرَىٰ إِثْمًا عَظِيمًا

“নিঃসন্দেহে আল্লাহ তাকে ক্ষমা করেন না, যে লোক তাঁর সাথে শরীক করে। তিনি ক্ষমা করেন এর নিম্ন পর্যায়ের পাপ, যার জন্য তিনি ইচ্ছা করেন। আর যে লোক অংশীদার সাব্যস্ত করল আল্লাহর সাথে, সে যেন অপবাদ আরোপ করল।” (সূরা নিসা: ৪৮)

আল্লাহ যদি তার উক্ত গুনাহগুলো ক্ষমা না করেন তাহলে জান্নামে শাস্তি হওয়ার পর কালিমা পড়ার কারণে এক পর্যাযে সে জান্নাতে প্রবেশ করবে। (অর্থাৎ শিরক ছাড়া অন্য গুনাহের কারণে সে চিরস্থায়ীভাবে জাহান্নামী হবে না।) এটিই আহলে সুন্নাহ ওয়াল জামাআর আকীদা।

রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন,

«مَنْ مَاتَ وَهُوَ يَشْهَدُ أَنْ لَا إِلَهَ إِلَّا اللهُ، وَأَنَّ مُحَمَّدًا رَسُولُ اللهِ صَادِقًا مِنْ قَلْبِهِ، دَخَلَ الْجَنَّةَ»

“যে ব্যক্তি মনে-প্রাণে লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ (আল্লাহ ছাড়া প্রকৃত উপাস্য কেউ নাই) মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ (মুহাম্মদ সা. আল্লাহর প্রেরীত দূত) এই সাক্ষ্যের উপর অটল থাকা অবস্থায় মৃত্যুবরণ করবে, সে জান্নাতে প্রবেশ করবে।” (আহমাদ)

সুতরাংকালিমার স্বাক্ষদানকারী প্রত্যেক মুসলিমের জন্য অনতিবিলম্বে শিরক, কুফুরী, বিদআত সহ সকল প্রকার কবীরা (বড়) ও সগীরা (ছোট) গুনাহ থেকে তওবা করা ফরজ। কারণ আমরা কেউ জানি না কখন কার মৃত্যু এসে হাজির হবে। 
আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে মৃত্যুর পূর্বে সকল প্রকার গুনাহ থেকে তওবা করার তাওফিক দান করুন। আমীন।

উত্তর প্রদানে: আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
লিসান্স, মদীনা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, সউদী আরব
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সউদী আরব।

About Mir Md Aminul Haque

প্রযোক্তিকে ভালবাসি ,নিত্য জানতে চাই নতুন কিছু,ছড়িয়ে দিতে চাই উজার করে নিজের জ্ঞান সবার মাঝে।

Check Also

বাজেটের মধ্যে Core i3 ডেস্কটপ নিজ হাতে তৈরী করুন

হ্যলো বন্ধুরা,আজকে আমি আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি একদম সুপার ডুপার একটা পোস্ট,পোস্ট টা হচ্ছে বাজেটের…

3 comments

  1. Like!! I blog quite often and I genuinely thank you for your information. The article has truly peaked my interest.

  2. I just like the helpful info you supply to your articles. I will bookmark your weblog and test again right here regularly. I am slightly sure I will be told lots of new stuff proper right here! Best of luck for the following!

  3. I’ve recently started a site, the info you provide on this website has helped me tremendously. Thank you for all of your time & work. “Quit worrying about your health. It’ll go away.” by Robert Orben.

Leave a Reply

Your email address will not be published.