Sunday , 15 September 2019
Home » SEO » SEO বাংলা টিউটোরিয়াল,কী ওয়ার্ড রিসার্চ এবং সিলেকশন(পার্ট-৬)

SEO বাংলা টিউটোরিয়াল,কী ওয়ার্ড রিসার্চ এবং সিলেকশন(পার্ট-৬)

হ্যালো বন্ধুরা,

আসসালামু আলাইকুম

সবাই কেমন আছেন ?আশাকরি ভাল আছেন,আর আজকে আমি আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি SEO বাংলা টিউটোরিয়াল এর ৬ষ্ট পর্ব,আর আমাদের আজিকের পর্বের বিষয় হল,কিওয়ার্ড রিসার্চ এবং সিলেকশন-

চলুন শুরু করা যাক আজকের পর্বের মূল আলোচনা-

প্রথমেই –

১)কী ওয়ার্ড রিসার্চ এবং সিলেকশন কীঃ

সার্চ ইঞ্জিন অপটি মাইজেশনের খুবই গুর
ত্বপূর্ণ বিষয় হল কীওয়ার্ড। একটি ওয়েব সাইটকে সার্চ ইঞ্জিনের টপ র‌্যাংকিং-এ আনার জন্য কীওয়ার্ড হচ্ছে খুবই গুরূত্বপূর্ণ একটি টুলস্। একটি পেইজের টোটাল কন্টেন্ট এর ২-৫ পার্সেন্ট এর মধ্যে কীওয়ার্ড থাকা উচিত। অর্থাৎ একটি পেইজে ২ বা ৩ টির বেশি ক ওয়ার্ড না থাকাই ভাল। কীওয়ার্ড সেই সব ওয়ার্ড যেগুলো দ্বারা আপনার ওয়েবসাইটকে ক্যাটালগ এবং ইনডেক্স করা হয় এমন কি খুঁজে পেতে সাহায্য করে। কী খুজে পাওয়া অথবা সিলেক্ট করা এটি খুব সহজ কাজ না। অনেক কোম্পানি কন্সালটেন্ট নিয়োগ দিয়ে থাকে কীওয়ার্ড রির্চাস এবং এনালাইসিস করার জন্য। আপনি যদি সঠিক কীওয়ার্ড সিলেক্ট করতে পারেন তবে আপনার সাইট টি সার্চ ইঞ্জিন এ ভিজিয়েবল হবে। অনেক ধরনের কীওয়ার্ড রিচার্স টুল্স আছে যেগুলো ব্যবহার করে আপনি সঠিক কীওয়ার্ড পেতে পরেন আপনার ওয়েব সাইটের জন্য।

২ কীওয়ার্ড এর গুরুত্বঃ

আপনি যখন সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করেন তখন আপনি একটি শব্দ বা একের অধিক শব্দ টাইপ করেন এবং সার্চ বাটনে ক্লিক করেন। এর পর সার্চ ইঞ্জিন ঐ শব্দগুলোকে এর ইন্ডেক্স এ খুঁজে দেখে। মনে কর
ন আপনি সার্চ করতে চাচ্ছেন একটি ব্রান্ড কার এর নাম দিয়ে। যেমনঃ- Ford । এখন এটি লিখে সার্চ
দি‪িছ।

তখন সার্চ ইঞ্জিন যে কাজ গুলো সাধারণত করে থাকে

 পেইজে ঐ Ford আছে কিনা।

 পেইজে যদি Ford না থাকে তাহলে এর কাছাকাছি কোন শব্দ আছে কিনা।

 পেইজের কোন লিংক এ Ford আছে কিনা অর্থাৎ Ford লেখা আছে কিনা।

 বোল্ড টেক্সট।

 Italicited টেক্সট।

 Bulleted লিস্ট।

 কোন টেক্সট যেটি অন্য টেক্সট এর চেয়ে বড়।

 হেডিং টেক্সট।

কীওয়ার্ড দ্বারা বুঝা যায় একটি ওয়েব সাইট কোন ধরনের এবং কি বিষয় ঐ ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে। যেমন মনে কর
ন-আপনি হোটেল খুজতে চা‪চ্ছেন, সুতরাং হোটেল হচ্ছে আপনার একটি কীওয়ার্ড। পৃথিবীতে অনেক হোটেল আছে সব হোটেল থেকে আপনারটাকে কত নম্বর পজিশনে দেখাবে?

এখন আসুন কীওয়ার্ড এনালাইসিস। একটু ভাবুন আপনার হোটেল যদি হয় দুবাই, আর আপনি যদি লেখেন দুবাই হোটেল, তাহলে অনেক প্রতিযোগিতা কমে গেল। এখন আপনার হোটেলের সাথে দুবাই এর হোটেল গুলোর কম্পিটিশন হবে।

উপরের উদাহরন থেকে বুঝা যাচ্ছে, আপনি যত নির্দিষ্ট করে সার্চ দিবেন আপনার সার্চ রেজাল্ট ও নির্দিষ্ট হবে। Hotel in asia দিয়ে সার্চ দিলে যেকোন দেশের হোটেল এর লিংক সার্চ রেজাল্ট এ শো করবে।

কিন্তু আপনি যদি hotel in dubai দিয়ে সার্চ করেন তাহলে শুধু দুবাই এর হোটেল দেখতে পাবেন। সার্চ ইঞ্জিন crawler বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট কীওয়ার্ড দিয়ে ভিজিট করে। আপনার ওয়েব সাইটের জন্য কীওয়ার্ড সিলেকশন যদি ভূল হয় তাহলে ওয়েবসাইটে ট্রাফিক ও আসবে না। অনেকেই খুব সুন্দর সুন্দর ডিজাইনের ওয়েব সাইট তৈরি করে কিন্তু তারা সঠিক কীওয়ার্ড Realize কম করে। একজন ইউজার যে কোন সার্চ ইঞ্জিনে গিয়ে কোন তথ্য জানার জন্য যে ওয়ার্ড বা ফেজ লিখছেন সেটিকেই আমরা কীওয়ার্ড বলবো।

আপনি কী জানেন ? মানুষ কোন কীওয়ার্ড দিয়ে সার্চ দিবে? আর মানুষের সেই
জানার বিষয়টাকে যত বেশি আপনি জানতে পারবেন ততই আপনার কীওয়ার্ড সিলেকশন সঠিক হবে। আর এ জন্য আপনাকে কীওয়ার্ড নিয়ে রিচার্স এবং এনালাইসিস করতে হবে। আপনি কীওয়ার্ড নিয়ে যত বেশি এনালাইসিস করবেন ততই আপনার ওয়েবসাইটের জন্য উপযুক্ত কীওয়ার্ড খুজে পাবেন। এ বিষয়
গুলো পরবর্তীতে আমরা আরো বিষদ ভাবে আলোচনা করব।

৩)কীওয়ার্ড এনালাইসিস শুরু করা-

 কীওয়ার্ড এনালাইসিস শুর
 করার আগে ভাবতে হবে কি ধরনের কীওয়ার্ড মানুষ সার্চ করতে ব্যবহার করে। অনেক সময় দেখা যায় কীওয়ার্ড এনালাইসিস এর জন্য অনেক বেশি সময় দিতে হয়।

 আপনি যেসব কীওয়ার্ডগুলো চিন্তা করছেন অথবা ভাবছেন ঐ সব কীওয়ার্ডগুলো কোন টেক্স এডিটর বা ওয়ার্ড প্রসেসরে টাইপ করে রাখুন। যখন কোন কীওয়ার্ড আপনার মনে পড়বে তখনই সেটাকে আপনি লিখে রাখুন। আর আপনি যদি লিখা শুর
 না করেন তবে আপনার মনে নতুন নতুন কীওয়ার্ড আসবে না। যত পারেন প্রতিদিন কিছু কিছু কীওয়ার্ড লিখুন। এ সময় দেখবেন আপনি যা চিন্তা করেন নি তার চেয়ে অনেক বেশি কীওয়ার্ড লেখা হয়ে গেছে। আপনার কখন ও ভাবা ঠিক হবে না যে আজকের মধ্যেই অথবা একবার শুর
 করেই কীওয়ার্ড এনালাইসিস শেষ করে ফেলবো। কারণ এটা অনেকটাই একটা সৃজনশীল ও বুদ্ধিমত্তার কাজ। এমন ও হতে পারে আজকে আপনি শুর
 করেছেন ভাবতে ও পারছেন না কি চিন্তা করবো। দয় করে থেমে থাকবেন না। আবার আগামীকাল শুর
 কর
ন । এভাবে এক সময় দেখবেন আপনি অনেকের চেয়ে ভাল কীওয়ার্ড এনালাইসিস করতে পারবেন। কারণ কোন কাজ শেষ করার পূর্ব শর্ত হল শুর
 করা।চ

 আপনি নিজে নিজে শুধু চিন্তা করবেন না বরং আপনার ফ্রেন্ডস এবং কলিকদের সাথেও আপনি আলোচনা করতে পারেন। দেখবেন তাদের থেকে আপনি ভাল কোন আইডিয়া পাচ্ছেন। যেটা আপনাকে কীওয়ার্ড সিলেক্ট করতে সাহায্য করবে। আপনি বিভিন্ন মানুষের সাথে কথা বলে জেনে নিতে পারেন তারা কোন ধরনের শব্দ দিয়ে কোন নিদিষ্ট তথ্য সার্চ করে।

 এবার আপনি তৈরি করা লিস্টটি চেক কর
ন কোন ধরনের বানান ভুল আছে কিনা। কীওয়ার্ডগুলো অবশ্যই ইংরেজিতে লিখবেন। তৈরিকৃত লিস্ট থেকে কিছু কীওয়ার্ড বাদ দিতে পারেন যেগুলো আপনার সাইট এবং সাইটের কন্টেন্ট এর সাথে মিল নেই। অর্থাৎ Relevent কীওয়ার্ড। এখন আপনি নিজে সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ দিয়ে দেখতে পারেন কোন ধরনের কীওয়ার্ড গুলো ইউজার বেশি সার্চ করে। এছাড়া এধরনের কিছু স্টাটিসটিক্স এর জন্য পরবর্তীতে কিছু টুল্স এর ব্যবহার দেখাবো।

চিত্রঃ 4 foreign education সার্চ রেজাল্ট।

উপরের চিত্রে দেখা যাচ্ছে foreign education দিয়ে গুগলে সার্চ দিলে সার্চ রেজাল্ট দেখাচ্ছে ১৩২০০০০০০। একই উদ্দ্যেশ্যেই যদি আমি সার্চ করিAbroad education তাহলে সার্চ দেখাচ্ছে ২৬০০০০০০। শুধু তাইনা সার্চ রেজাল্টে এর লিংকগুলো ও দুভাবে সার্চ দিলে আগে পরে আসবে হয়তো foreign education এর জন্য যে সাইটে সার্চ রেজাল্টের টপে আছে দেখা যাচ্ছে Abroad education এর জন্য সেটি টপে নাও থাকতে পারে।চ

 আপনার প্রেডাক্ট-এর নাম যদি এক শব্দে হয় ধর
ন আপনার একটি প্রডাক্টে এর নাম Readleaf আপনি হয়তো ভাবতে পারেন আপনার কীওয়ার্ড Readleaf কিন্তু মনে রাখতে হবে আপনি যখন কীওয়ার্ড এনালাইসিস করছেন তখন কিন্তু কাস্টমারের কথা চিন্তা করে করতে হবে। এমন ও হতে পারে আপনার কাস্টমার হয়তো সার্চ দিচ্ছে Read leaf দুটো আলাদা শব্দ ব্যবহার করে। সেজন্য মাঝে মাঝে শব্দকে ভেঙ্গে লিখতে পারে। সেজন্য কখনও কখনও শব্দ মার্জ করতে হতে পারে আবার কখনও কখনও শব্দকে আলাদা করে লিখতে হতে পারে। আপনি সার্চ
ইঞ্জিনে সার্চ দিয়ে এবং সার্চ রেজাল্টের উপর ভিত্তি করে বুঝতে পারবেন কোন শব্দটি কত বেশি ব্যবহার হয়।

 আপনি আপনার তৈরিকৃত লিস্টে সিঙ্গুলার এবং প্লোরাল আলাদা করে এ্যাড করে নিন। কারণ সার্চ ইঞ্জিন সিঙ্গুলার এবং প্লোরালকে আলাদা করে ট্রিট করে। যেমন আপনি যদি সার্চ বক্সে লিখেন Ford এবং fords এদুটিকে আলাদা করে দেখাবে এবং সার্চ রেজাল্টও আলাদা দেখাবে। পরবর্তীতে Wordtraker নিয়ে আলোচনা করা হবে যেটির সাহাজ্যে কীওয়ার্ড সিলেক্ট করা যায়। তবে একটি বিষয় মনে রাখবেন এখানে আপারকেস এবং লোয়ার কেস কোন বিষয় নয়।

যেমন আপনি যদি সার্চ ইঞ্জিনে FORD দিয়ে আপনি যে সার্চ রেজাল্ট পাবেন আপনি ঠিক ford দিয়ে আপনি যে সার্চ কর
ন ঐ একই রেজাল্ট পাবেন।
অর্থাৎ ছোট হাতের বা বড় হাতের যা দিয়েই করি না আউটপুট একই আসবে।

এছাড়াও যদি আপনি ছোট হাতের বা বড় হাতের এক সাথেও লিখেন সার্চ রেজাল্ট একই থাকবে।

তবে বেশির ভাগ ইউজার লোয়ার লেটার দিয়েই সার্চ করে।

 অনেক সময় কিছু ওয়ার্ড কেউ হাইপেন দিয়ে লিখেন। আবার কেউ হাইপেন ছাড়া লিখেন। সুতরাং আমরা দুটিকেই আলাদা আলাদাভাবে লিখব। যেমন ই-কমার্স এটাকে অনেকে ই-কমার্স এভাবেও লিখে থাকে। তবে সব সময় সঠিক এবং ভুল চিন্তা করা যাবে না। আপনি যদি মনে করেন একটি শব্দ এভাবে লেখা ভূল আপনি সেটাকে কীওয়ার্ড হিসেবে চিন্তা করবেন না। এটা ঠিক না কারন আপনার উদ্দ্যেশ্য ভিজিটর নিয়ে আসা। সুতরাং তারা ভুল করে কি সার্চ দিতেপারে সেটা ও আপনাকে চিন্তা করতে হবে।যেন সার্চ রেজাল্ট একই থাকবে।

অনেক সময় ইউজার কোম্পানি নেইম এবং প্রোডাক্ট নেইম লিখেও সার্চ দিয়ে থাকে সেজন্য কোম্পানি নেইম এবং কোম্পানি নেইম ও কীওয়ার্ড লিস্টে এ্যাড কর
ন।

৪) Anchor টেক্সট

লিংক টেক্সট প্রায় ওয়েবসাইটে এ্যাড করা হয়। এটি সাধারণত আন্ডারলাইন এবং অল্টারনেটিভ কালার এরকমভাবে থাকে।

চিত্রঃচিহ্নিত করা এ্যাংকর টেক্সট।

সার্চ ইঞ্জিন ক্রোয়েলারগুলো যখন এম্বেডেড করা এ্যাংকর টেক্সট গুলো রিড করে তখন বুঝতে পারে এটা কোন ধরনের সাইট। আপনি চাইলে আপনার কীওয়ার্ডকে এ্যাংকর টেক্সট হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এত করে আপনার কীওয়ার্ড র‌্যাংকিং এবং এ্যাংকর টেক্সট র‌্যাংকিং দুটোই বেড়ে গেল। সব সময় চেষ্টা করা উচিত আপনার এ্যাংকর টেক্সট অন্যদের চেয়ে আলাদা হয়। আপনার ওয়েবসাইটের র‌্যাংকিং বাড়ানোর জন্য এবং ট্রাফিক বাড়ানোর জন্য অন্যতম হচ্ছে সাইটম্যাপ।

তাহলে বন্ধুরা এখানেই শেষ করতেছি আজকের পর্ব ,পরবর্তি পর্বে আমরা কী ওয়ার্ড রিসার্চ এবং সিলেকশন নিয়ে আরো আলোচনা করব ,আজকের পর্বটি অনেক লম্ভা হয়ে গেসে তাই আর আজকের পর্বে লিখতে পারতেছি নাহ,আসলে এত বড় পোস্ট টাইফ করা অনেক কস্টের কাজ ,আমার হাত ব্যথা করতেছে তাও আমি পোস্ট গুলো আপনাদের জন্য লিখি।সবাই দয়া করে কমেন্ট করবেন,শেয়ার করবেন ,আর আজকের পর্ব এখানেই শেষ করছি সবাই ভাল থাকুন ।

আল্লাহ হাফেজ

About Mir Md Aminul Haque

প্রযোক্তিকে ভালবাসি ,নিত্য জানতে চাই নতুন কিছু,ছড়িয়ে দিতে চাই উজার করে নিজের জ্ঞান সবার মাঝে।

Check Also

deactivate laptops built in keyboard

deactivate laptops built in keyboard – দেখেনিন কিভাবে।

deactivate laptops built in keyboard এই পোস্টটা আপনার জন্য খুবই দরকারি ,যদি আপনি laptop user…

Leave a Reply

Your email address will not be published.