Saturday , 7 December 2019
Home » Tag Archives: অনলাইন থেকে ইনকাম

Tag Archives: অনলাইন থেকে ইনকাম

Online earning|২ মিনিট কাজ ১৮০ টাকা অনলাইনে ইনকাম করুন।

হ্যালো বন্ধুরা Online earning /অনলাইনে ইনকাম নিয়ে এইটি আমাদের সাইটের ২য় পোস্ট।

আর আমরা আমরা আমাদের সাইটে কোন ফেইক পোস্ট করি না।আমরা আমাদের ভিজিটরদের ধোকা দিতে চাইনা তাই আমরা গাদা গাদা পোস্ট করে আমাদের সাইটের পোস্টের সংখ্যা বাড়াই না বরং কম সখ্যক রিয়েল পোস্ট করি যাতে আমাদের সাইট থেকে ভিজিটরদের সামান্য হলেও উপকার হয়।

তাই আমরা অনলাইন ইনকাম নিয়ে পোস্ট করার আগে সেটি নিজে যাচাই করি তার পরে যদি পেমেন্ট পাই তাহলে ভিজিটরদের সাথে শেয়ার করি।

আর আজকে আমি আপনাদের জন্য যে অনলাইন ইনকামের পোস্ট টা নিয়ে এসেছি এটি একটি Airdrop। এদের আগের রাউন্ড থেকে আমি আগে পেমেন্ট পেয়েছি তাই এবারের রাউন্ড টা আপনাদের সাথে শেয়ার করতেছি।

এই এয়ারড্রপে শুধু মাত্র অংশ নিয়ে ফ্রিতে ১৮০ টাকা ইনকাম করতে পারেন।

আজকে আমি আপনাদের যে Airdrop এ জয়েন করাব তাদের আগের রাউন্ড থেকে আমি আগে পেমেন্ট পেয়েছি এবং বর্তমান রাউন্ডে আমার তারা ২০০০০ জন মেম্বার নেবে এবং ২০০০০ জনের প্রত্যেককে ১৮০ টাকা করে দেবে।আর তাদের কয়েন Coingecko  তে লিস্টেড আছে ।আর শীগ্রই Coinmarketcap  তে লিস্টেড হবে আশা করি।

এই পর্যন্ত ৫ হাজার এর উপরে মেম্বার এড হয়ে গেছে তাই সময় সিমিত ১৮০ টাকা পেতে হলে আপনাদের দ্রুত কাজটা করতে হবে। চলুন দেখে নেই কিভাবে জয়েন করবেন-

এই এয়ারড্রপ টি Telegram বুট তাই আপনার অবশ্যই টেলিগ্রাম থাকতে হবে,াপনার ডিভাইসে(Android/windows pc) যদি টেলিগ্রাম install করা থাকে তাহলে নিচের লিংকে ক্লিক করুন- click here to join নিচের মত একটা পেইজ আসবে সেখানে Start button এ ক্লিক করবেন।

তারপরে Airdrop Tasks এ ক্লিক করবেন।

তারপর তাদের টেলিগ্রাম চ্যানেল এবং গ্রুপ এ জয়েন করে Refresh এ ক্লিক করুন।

তারপর এই টেলিগ্রাম চ্যানেল এ জয়েন করে Refresh এ ক্লিক করুন।

তারপর তাদের টুইটারে Follow করে আপনার টুইটার ইউজার নেইম দিন।

তারপর আপনার একটা Active Email এবং Myetherwallet এড্রেস দিন।

তারপর Balance এ ক্লিক করে আপনার অ্যাকাউন্ট এর কয়েন দেখতে পারবেন।অ্যাকাউন্ট করে আপনারা ৪০ DBT কয়েন পাবেন যার দাম ১৮০ টাকা।

এই কয়েন গুলো আপনারা তাদের ২০০০০ মেম্বার পুর্ণ হওয়ার ১৪ দিনপরে payout করতে পারবেন,

আমার আগের রাউন্ড এর পেমেন্টপ্রুফ-

তাহলে এই ছিল আমাদের আজকের অনলাইন ইনকাম/online earning এর পোস্ট,আশা করি সবাই উঝতে পেরেছেন এবং Airdrop এ অংশ নিতে পেরেছেন।

পোস্ট টি ভাল লাগলীকটা লাইক দেবেন এবং কোন সমস্যা হলে কমেন্ট করবেন।

আজকের মত এখানেই শেষ করছি আমাদের অনলাইন আরনিং এর পোস্ট ,সবাই ভাল থাকবেন সুস্থ থাকবেন,নিয়মিত আমাদের সাইট ভিজিট করবেন।

ধন্যবাদ

অনলাইনে ইনকামের আরো পোস্ট-

GET COIN অ্যাপ দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করুন হাজার হাজার টাকা

HTML ফ্রি বাংলা টিউটোরিয়াল,HTML নিয়ে প্রাথমিক আলোচনা।HTML শিখে ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব? বিস্তারিত আলোচনা।

হ্যাল বন্ধুরা,

আসসালামু আলাইকুম

সবাই কেমন আছেন আশা করি ভাল আছেন,আজকে আমরা শুরু করতে যাচ্ছি এইচটিএমএল এর বাংলা টিউটোরিয়াল ,আজকে আমাদের প্রথম পর্ব ,আজ্কের পর্বে আমরা জানব-

)- এইচটিএমএল(HTML) কী?

২)- HTML ল্যাংগুয়েজ কিভাবে কাজ করে?

৩)-এইচটিএমএল ল্যাঙ্গুয়েজের প্রয়োজনিয়তা।

৪)-ক্যারিয়ার হিসেবে HTML।

এতক্ষন আমরা জানলাম আজকের পর্বে আমরা কী কী শিখব এখন চলুন আমরা শুরু করি আমাদের মূল আলোচনা।

প্রথমেই আমরা যে বিশয়ে আলোচনা করব সেটা হল—

)- এইচটিএমএল(HTML) কী?

হাইপারটেক্সট মার্কআপ ল্যাংগুয়েজ (HyperText Markup Language) এর সংক্ষিপ্ত রুপ হচ্ছে এইচটিএমএল (HTML)। এটি কোন প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ নয়,এটি মূলত একটি মার্কআপ লয়াঙ্গুয়েজ।

  • Hyper :  অতি পূরুনো (HTML তৈরীর পুর্বে)কম্পিউটার গুলাতে কোণ লিখাকে বিষেশ ভাবে প্রকাশ করার জন্য লেখার নিচে রেখা টানা হত।কিন্তু বর্ত্মানে শুধু রেখাই নয় ব্যবহারকারী অন্য কোন ওয়েবপেইএজে যেতেও সক্ষম হচ্ছে।
  • Text :Text বলতে মূলত আমরা যা পড়তে পারি।এটি কোন শব্দ বা ষব্দ সমস্টিকে বোঝায়।
  • Markup :ওয়েব পেইজের গঠন নির্ধারন/প্রয়োজনীয় পরিবর্তন সাধন করতে ব্যবাবহিত পদ্ধতি এ হচ্ছে Markup.যেমন ঃসাধারন কোন টেক্সটকে লিংক করার জন্য <a> ট্যাগ ব্যবহৃত হয়।
  • Language ঃ এক্ষেত্রে ল্যাংগুয়েজ বলতে কম্পিউটারের জন্য ব্যবহৃত ল্যাংগুয়েজ কে বোঝানো হয়ে থাকে।
  • যেমনঃ HTML (Markup Language), XML (Markup Language), PHP (Programming Language)

মার্কআপ ল্যাংগুয়েজ মূলত পুর্ব নির্ধারিত কিছু কোড বা ট্যাগ এর সমস্টি,যা কোন ওয়েব পেইজের বাহ্যিক গঠন নির্নায়নে ব্যবহৃত হয়।ওয়েব পেইজের কনটেন্টকে (অডিও,ভিডিও,টেক্সট ইত্যাদি) ব্রাউজারে প্রদর্শন করানোর জন্য ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

২)- HTML ল্যাংগুয়েজ কিভাবে কাজ করে?

কোন ভিজিটর যখন ওয়েব সার্বারের নিকট কোন এইচটিএমএল ফাইলের জন্য রিকোয়েস্ট পাঠায় ওয়েব সার্ভার তখন ভিজিটরের কম্পিউটারে ASCII (American Standard Code for Information Interchange) টেক্সট এর এক দির্ঘ স্ট্রিং পাঠায় এবং ভিজিটরের ব্রাউজার তখন এইটাকে ওয়েব পেইজ আকারে প্রদর্শন করে। ওয়েব পেইজের গঠন কিরুপ হবে ,টেক্সট সমূহ কিভাবে প্রদর্শিত হবে ইত্যাদি বিষয় নির্ভর করে এইচটিএমএল ফাইলের ব্যাবহৃত ট্যাগ এর উপর। এই টিউটোরিয়াল এর পরবর্তিতে আমরা ট্যাগ নিয়ে আলোচনা করব।

চিত্রঃ ওয়েব সার্ভারের কাছে পাঠানো ভিজিটর এর রিকোয়েস্ট।

৩)-এইচটিএমএল ল্যাঙ্গুয়েজের প্রয়োজনিয়তা।

ওয়েব পেইজ তৈরিতে HTML ল্যাংগুয়েজ ভিত্তি হিসেবে কাজ করে। HTML ব্যাতিত কোন ওয়েবসাইট তৈরী/ডিজাইন/ডেবেলপ করা সম্ভব নয়। যদিও এইচটিএমএল কোন পরিপূর্ণ ল্যাংগুয়েজ নয়।Html ব্যবহার করে কেবল স্ট্যাটিক ওয়েব সাইট তৈরী করা যায়।নিচে এইচটিএমএল এ তৈরি একটি ওয়েব পেইজের চিত্র দেখানো হল।

চিত্রঃ এইচটিএমএল ব্যবহার করা ওয়েব পেইজ।

উক্ত পেইজে বিভিন্য স্টাইল প্রয়োগ করে পরিপূর্নতা আনার জন্য CSS (Cascading Style Sheet ) ব্যবহার করা অবশ্যক। css সম্পর্কে পরিপুর্ন জ্ঞ্যান অর্জন করার জন্য CSS টিউটোরিয়াল দেখতে পারেন।তাছাড়া বিভিন্য মাল্টিমিডিয়া ,ফ্ল্যাশ,এপি-কেশন তথাপি ওয়েব পেইজ কে ডাইনামিক করার জন্য বিভিন্য প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ (PHP, JAVA, JavaScript ইত্যাদি) ব্রাওজারে প্রদর্শন করানোর জন্য এইচটিএমএল ল্যাংগুয়েজ ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

সুতরাং বলা যেতে পারে দালান তৈরীতে যেমন ইট,রড,সিমেন্ট অপরিহার্য তেমনি ওয়েব পেইজ তৈরীতে এইচটিএমএল।

৪)-ক্যারিয়ার হিসেবে HTML।

বর্তমান বিশ্বে Web Design/Development এর চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলছে।আর ওয়েব দিজাইন ডেবেলপ এর জন্য এইচটিএমএল অপরিহার্য।লোকাল মার্কেটে সেগুলোর রয়েছে এর ব্যাপক চাহিদা।প্রতিটা প্রতিষ্ঠান/কোম্পানি আজ বিশ্বব্যাপি তাদের ব্যবসা পরিচালনার জন্য ওয়েব সাইট তৈরীর দিকে ঝুক দিচ্ছে।আর তারই সাথে বাড়ছে এইচটিএমএল এর চাহিদা।তাছাড়া শুধু মাত্র এইচটিএমএল এর উপর ভিত্তি করে অনলাইনে রয়েছে প্রচুর কাজ।এইচটিএমএল এর উপর দক্ষ হয়ে ঘরে বসে হাজার হাজার ডলার ইনকাম করা সম্ভব।